বৃহস্পতিবার

ঢাকা, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সর্বশেষ


খবর

মডেল রকেট উৎক্ষেপণে শেষ হলো এস্ট্রনট ক্যাম্প

প্রকাশ: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, দুপুর ৪:৪১

টেকওয়ার্ল্ড প্রতিবেদক

Card image

ছবি: সংগৃহীত

দিনব্যাপী উক্ত আয়োজনে ছিল এপোলো মিশন, মার্স রোভার, মুন রোভার নিয়ে স্পেস টক, সেই সাথে ছিল হাতে কলমে মডেল রকেট তৈরি, স্পেস-এর আদলে রোবট তৈরি, ভি আর বেইস এস্ট্রনট ট্রেইনিং এবং কুইজ কম্পিটিশন। এর বাইরেও বিশেষ চমক হিসেবে ছিল এস্ট্রনট ফটো বুথ যেখানে শিশু-কিশোররা এস্ট্রনট ড্রেস পড়ে ছবি তুলে।

শিশু-কিশোরদের মহাকাশ বিজ্ঞানে উৎসাহিত করতে এবং মহাকাশের বিভিন্ন বিষয়ে জানানোর উদ্দেশে ৪ থেকে ১৪ বছর বয়সি ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় এবং স্পেস ইনোভেশন ক্যাম্প-এর যৌথ উদ্যোগে বন্দরনগরী চট্রগ্রাম, বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো এস্ট্রনট ক্যাম্প।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়াসা ক্যাম্পাস সেন্ট্রাল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় এই আয়োজনটি।

আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, সারা দিনব্যাপী উক্ত আয়োজনে ছিল এপোলো মিশন, মার্স রোভার, মুন রোভার নিয়ে স্পেস টক, সেই সাথে ছিল হাতে কলমে মডেল রকেট তৈরি, স্পেস-এর আদলে রোবট তৈরি, ভি আর বেইস এস্ট্রনট ট্রেইনিং এবং কুইজ কম্পিটিশন। এর বাইরেও বিশেষ চমক হিসেবে ছিল এস্ট্রনট ফটো বুথ যেখানে শিশু-কিশোররা এস্ট্রনট ড্রেস পড়ে ছবি তুলে।

চট্টগ্রাম এবং তার আশেপাশের বিভিন্ন স্কুল থেকে প্রায় ৫০০ জন ছাত্র-ছাত্রী অত্যন্ত আনন্দের সাথে দিনব্যাপী আয়োজনটিতে অংশগ্রহণ করে।

আয়োজনটিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার তৌফিক সাঈদ, প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান ড. শহীদ মো. আসিফ ইকবাল এবং স্পেস এক্সপ্লোরেশন অলিম্পিয়াড-এর একাডেমিক এডভাইজার সৈয়দ মো. মিনহাজ হোসেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির বিকাশে এবং পরবর্তী প্রজন্মকে মহাকাশ বিজ্ঞানে উৎসাহিত করার জন্য এই ধরনের ক্যাম্প আরও বেশি বেশি দরকার বলে আমি মনে করি এবং ছাত্র-ছাত্রীদেরকে যুগপযোগী জ্ঞান ও দক্ষতায় সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলতে এ ধরনের উদ্যোগ অব্যাহত থাকা জরুরি।

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রেসিডেন্ট আরিফুল হাসান অপু বলেন, আমাদের দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের মহাকাশ বিজ্ঞান সম্পর্কে জানার প্রচুর আগ্রহ রয়েছে। মহাকাশে কি ঘটছে, নভোচারীরা কিভাবে মহাকাশে ভেসে বেড়ায়? নভোচারীরা সেখানে কতদিন থাকে? স্পেস এক্সপ্লোরেশনে তাদের ভুমিকা কি? এই ধরনের অজানা প্রশ্নের উত্তর দেয়ার জন্যেই মুলত আমাদের এই আয়োজন। আমরা মনে করি এ ধরনের প্রোগ্রামের মাধ্যমে তাদের মধ্যে মহাকাশ বিজ্ঞান সম্পর্কে জানার কৌতুহল আরোও বেশি বাড়বে এবং সেই জানার পরিপ্রেক্ষিতে তাদের একাডেমিক পড়াশোনার ক্ষেত্রেও এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

আয়োজনটিতে আইটি পার্টনার হিসেবে ছিল রিভারি কর্পোরেশন এবং রোবাস্ট রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড, মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিল দ্যা বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড এবং ক্লাব পার্টনার হিসেবে ছিল চিটাগং ইউনিভার্সিটি সাইন্টিফিক সোসাইটি।

সংবাদটি পঠিত হয়েছে: ৫৯ বার

SPACE FOR AD (760 X 180)

খবর সম্পর্কিত নিউজ