টেক রিপাবলিক-এ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার জাবরা টক

প্রকাশঃ ০৭:৩৫ মিঃ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৯
Card image cap


টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

বৈরী পরিবেশেও ফুরফুরে মেজাজে স্মার্টফোনে কথোপকথন কিংবা গানশোনার সুবিধা দিচ্ছে জাবরা টক। ব্যাগে কিংবা পকেটে রেখেই ব্যবহারকারীকে স্মার্টফোন ব্যবহারের সুবিধা দিতে জাবরা টক ৪৫ ও ৫৫ মডেলের মাইক্রোফোন দেশের বাজারে পরিবেশন করছে টেক রিপাবলিক লিমিটেড। ব্লু-টুথ ৪.২ এবং এনএফসি প্রযুক্তি মাইক্রোফনটিকে দিয়েছে তারের জঞ্জাল থেকে মুক্তি। অন্তত ৩০ মিটারের মধ্যে জোড়বাঁধা ডিভাইসের সঙ্গে সংযুক্ত থাকে। 

নকশায় মুন্সিয়ানা থাকায় কানের সঙ্গে সহজেই সেঁটে থাকে জাবরা টক ৪৫ ও ৫৫। নরম তুলতুলে বাড দীর্ঘ সময় ব্যবহারে বিরক্তির কারণ হয় না। চাইলে হাতের ব্যবহার ছাড়াই ফোন করা ও ধরা যায়। ই-মেইল বা খুদে বার্তা এলে তাও পড়ে শোনায়। ফলে শশব্যস্ত অবস্থায় কেবল ভয়েস কমান্ডের মাধ্যমেই স্মার্টফোন ব্যবহার করা যায়। গাড়ি চালানোর সময় শোনা যায় পথ নির্দেশনা। ফাইল সই করতে করতে কিংবা অফিস নির্দেশনা শুনতেই তা টাইপ করা বা নোট নেয়া যায়। 

জাবরা ৪৫ মডেলের মাইক্রো ফোনে টানা ৬ ঘণ্টা পর্যন্ত কথা বলা যায়।দুই ঘণ্টায় পুরোপুরি চার্জ হয়। এই ডুয়াল নয়েজ ক্যান্সেলিং মাইক্রোফোনটি এক চার্জে ৮ দিন পর্যন্ত সচল থাকে। এক বছরের বিক্রয়োত্তর সেবাসহ এয়ারফোনটির দাম পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা। অন্যদিকে জাবরা টক ৫৫ মডেলের মাইক্রোফোনটি’র সঙ্গে বাড়তি একটি বহনযোগ্য চার্জার রয়েছে। ক্যারিকেজ হিসেবে ব্যবহৃত এই চার্জারের ফলে অতিরিক্ত ৭ ঘণ্টা কথা বলা যায়। এই মাইক্রোফোনে টানা ১০ ঘণ্টা কথা বলা যায়। উভয় মাইক্রোফোনেই রয়েছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। তাই নিজ থেকেই চারপাশের পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাইয়েই কথা আদান-প্রদানের শব্দমাত্রা (ভলিউম) কমিয়ে কিংবা বাড়িয়ে নেয়। ফলে শুধু ডিভাইসের সঙ্গে সংযুক্ত করেই নির্ঝঞ্ঝাট ব্যবহার করা যায় জাবরা টক ৪৫ ও ৫৫। 

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ৬৫০ বার