ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটিতে আন্তর্জাতিক সম্মেলন ‘কম্পিউটেশনাল ইন্টিলিজেন্স-২০১৮’ অনুষ্ঠিত

প্রকাশঃ ১২:১২ মিঃ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৯
Card image cap

ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটিতে আন্তর্জাতিক সম্মেলন ‘কম্পিউটেশনাল ইন্টিলিজেন্স-২০১৮’ অনুষ্ঠিত

টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও ভারতের সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটির সম্মিলিত আয়োজনে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে দুই দিনব্যাপী ‘ইন্টারন্যাশনাল জয়েন্ট কনফারেন্স অন কম্পিউটেশনাল ইন্টিলিজেন্স-২০১৮ (আইজেসিসিআই)’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইজেসিসিআই-এর জেনারেল চেয়ার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শরীফ উদ্দিন। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োমেডিকেল ফিজিক্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. সিদ্দিক ই রব্বানী।

এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান ও আইজেসিসিআই-এর জেনারেল চেয়ার অধ্যাপক ড. সৈয়দ আকতার হোসেন, ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্সের পরিচালক অধ্যাপক ড. ফখরে হোসেন প্রমুখ। সম্মেলনে বিভিন্ন সেশনে দেশী-বিদেশী বক্তারা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান বলেন, আমাদের এখন সববিষয়ে নতুন করে ভাবতে হবে। সারা পৃথিবীতে এখন চতুর্থ শিল্পবিপ্লব চলছে। সেই বিপ্লবের সঙ্গে একাত্ম হতে না পারলে আমরা পিছিয়ে পড়ব। তাই আমাদের তরুণ প্রজন্মকে আধুনিক জ্ঞান বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে হবে। এজন্য বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের পাঠ্যক্রমে পরিবর্তন আনা জরুরি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়কে প্রগতিশীল বিশ্ববিদ্যালয় উল্লেখ করে অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়টি সব সময় বিভিন্ন ধরনের সভা সেমিনার করে থাকে। শিক্ষার্থীদেরকে নতুর নতুন জ্ঞান বিজ্ঞানের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়। তাদের মধ্যে উদ্ভাবনী স্পৃহা জাগ্রত করে। একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূমিকা এমনই হওয়া উচিত বলে মনে করেন অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান।

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ২৭২ বার