বেসিসের অতিরিক্ত সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশঃ ০৩:০২ মিঃ, ডিসেম্বর ২০, ২০১৮
Card image cap

বেসিসের অতিরিক্ত সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

দেশের সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর অতিরিক্তি সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৯ ডিসেম্বর (বুধবার) সন্ধ্যায় রাজধানীর লেকশোর হোটেলে অনুষ্ঠিত হয় বেসিসের অতিরিক্ত সাধারণ সভা। 

বেসিস সদস্যপদ, প্রক্রিয়া, যোগ্যতা, শর্তাবলী ও যথাযথ প্রতিষ্ঠানকে বেসিস-এর সদস্যপদ প্রদান বিষয়ে যুগোপযোগী নীতিমালা প্রণয়ন এবং বিদ্যমান নীতিমালা সংশোধনের লক্ষ্যে অতিরিক্ত সাধারণ সভার আয়োজন করা হয়।

বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ফারহানা এ রহমান, সহ-সভাপতি (প্রশাসন) শোয়েব আহমেদ মাসুদ, সহ-সভাপতি (অর্থ) মুশফিকুর রহমান, পরিচালক তামজিদ সিদ্দিক ¯পন্দন, পরিচালক দিদারুল আলম এবং পরিচালক মোস্তাফা রফিকুল ইসলাম ডিউক। এছাড়াও সভায় বেসিসের দুই শতাধিক সদস্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।  

সভায় বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বর্তমান সময়ের চাহিদা ও প্রয়োজনীয়তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সুনির্দিষ্টভাবে কিছু নীতিমালা সংশোধন প্রস্তাব সদস্যদের সামনে পেশ করেন। তিনি বলেন, বেসিস গত ২০ বছরে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন হিসেবে পরিণত হয়েছে এবং সরকারসহ সকল মহলে বেসিস-এর গ্রহণযোগ্যতা ও গুরুত্ব বেড়েছে।  

ফলস্বরূপ বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবসায়ী বা উদ্যোক্তা, বিশেষত: যাঁরা সফটওয়্যার, আইটি অ্যানাবেল্ড সার্ভিসেস এবং ভার্চুয়াল ব্যবসা করছেন, সেসব প্রতিষ্ঠান এমনকি বাংলাদেশে নিবন্ধিত বিদেশী প্রতিষ্ঠানসমূহ, সকলেই বেসিস-এর সদস্যপদ লাভ করতে এখন আগ্রহী। আমরাও চাই সফটওয়্যার, আইটি অ্যানাবেল্ড সার্ভিসেস এবং ভার্চুয়াল ব্যবসা সংশ্লিষ্ট সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বেসিস-এর সদস্যপদ লাভ করুক এবং সকলকে সাথে নিয়ে আমরা তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পখাতের উন্নয়নে কার্যকর অবদান রাখি। সে লক্ষ্যেই আমাদের এই সংঘবিধি সংশোধনের উদ্যোগ।

সংশোধনী প্রস্তাবনার উপর উপস্থিত সদস্যবৃন্দ আলোচনায় অংশ নেন। বিস্তারিত আলোচনান্তে সংশোধনী প্রস্তাবগুলো বেসিস সদস্যদের কন্ঠভোটে পাশ হয়। সবশেষে সদস্যদের ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমে অতিরিক্ত সাধারণ সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন বেসিস সভাপতি।

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ১২০ বার