ক্যালিফোর্নিয়া থেকে শুরু ফোল্ডএবল স্মার্টফোনের যুগ

প্রকাশঃ ০১:৫১ মিঃ, নভেম্বর ৩, ২০১৮
Card image cap


টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

প্রথম মোরানো বা ফোল্ডএবল ফোন’ বানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক স্টার্ট-আপ রয়ওল। নমনীয় ডিসপ্লে তৈরিতে বিশেষজ্ঞ এই প্রতিষ্ঠান চীনের বেইজিংয়ে ফ্লেক্সপাই নামের নতুন একটি হ্যান্ডসেট উন্মোচন করেছে।

ডিভাইসে ৭.৮ ইঞ্চির একটি স্ক্রিন রয়েছে, যা বাজারে প্রচলিত অনেক ট্যাবলেট স্ক্রিনের চেয়ে বড়। তবে ভাঁজ করা হলে স্ক্রিনটি তিনটি ছোট স্ক্রিনে ভাগ হয়ে যায়- সামনে একটি, পেছনে একটি ও সামনে পেছনে ভাঁজের মাঝখানে একটি।  ছয় বছর আগে যাত্রা শুরু করা প্রতিষ্ঠানটি জানায়, ১ নভেম্বর থেকেই চীনে এই পণ্য বিক্রি শুরু হবে।

ফোনটির দাম রাখা হবে ৮,৯৯৯ ইউয়ান থেকে ১২,৯৯৯ ইউয়ানের মধ্যে, ডলারের হিসেবে অংকটা ১২৯০ থেকে ১৮৬৩-এর মধ্যে হবে। একই দিনে বিশ্বব্যাপী ডেভেলপারদের জন্য ডিভাইসটির কিছুটা ভিন্ন সংস্করণ ছাড়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ডিসেম্বরের শেষে এই ফোন সরবরাহ শুরু আশা করছে রয়ওলে।  হঠাৎ নতুন এই ডিভাইস এসে স্মার্টফোন খাতের অনেক পর্যবেক্ষকেরই চোখ কপালে উঠিয়ে দিয়েছে।

কৃতিত্বটা স্যামসাং বা হুয়াওয়ে নেবে বলেই ধারণা করা হচ্ছিল এতদিন। আসছে ৭ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের স্যান ফ্রানসিসকো-তে নিজেদের ইভেন্টে স্যামসাং এমন ডিভাইস প্রদর্শন করবে বলেও প্রত্যাশা ছিল। জানুয়ারিতে সিইএস ট্রেড শো-তে এলজি এমন ডিভাইস আনবে বলে ধারণা করেছিলেন ভেঞ্চারবিট প্রতিবেদক ইভান ব্লাস। কিন্তু স্মার্টফোন জায়ান্টদের তাক লাগিয়ে প্রথম ফোল্ডএবল স্মার্টফোন আনার কৃতিত্ব নিলো এই স্টার্ট-আপ।

ডিভাইসটি কেনার ক্ষেত্রে ক্রেতাদের মনে রাখতে হবে যে এর ওজন ৩২০ গ্রাম, আইফোন Xএস ম্যাক্স বা গ্যালাক্সি নোট ৯-এর তুলনায় পার্থক্যটা ৫০ শতাংশেরও বেশি।

ফ্লেক্সপাইয়ের স্ক্রিন দুই লাখ বার খোলা ও বন্ধ করার মাধ্যমে পরীক্ষা করা হয়েছে, তাই অনেক বছরেও এটি ঠিকঠাক ব্যবহার করা যাবে বলে দাবি রয়ওল’র।

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ১৪১৫ বার