বায়োমেট্রিক ওয়ার্কার ডেটাবেসের জন্য বিজিএমইএ পেলো আন্তর্জাতিক অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ড

প্রকাশঃ ১১:০৬ মিঃ, নভেম্বর ১৩, ২০১৮
Card image cap


টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

'বায়োমেট্রিক আইডেন্টিটি এন্ড ওয়ার্কার ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ওয়ার্কার ডেটাবেসে)' ব্যবহারের জন্য অ্যাসোসিও কর্তৃক এ বছরের শ্রেষ্ঠ ব্যবহারকারী প্রতিষ্ঠানের পুরস্কার পেয়েছে বিজিএমইএ। সম্প্রতি জাপানের টোকিওতে অনুষ্ঠিত 'অ্যাসোসিও ডিজিটাল মাস্টার্স সামিট ২০১৮'-এ আন্তর্জাতিক এই সম্মাননা বিজিএমইএ-র হাতে তুলে দেন অ্যাসোসিও-এর চেয়ারম্যান জনাব ডেভিড ওং সহ অন্যান্যরা। অ্যাসোসিও -এর বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত বিজিএমইএ-র পক্ষে এই পুরস্কার গ্রহণ করেন বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, বিজিএমইএ সহ-সভাপতি (অর্থ) মোহাম্মদ নাসির এবং সফটওয়্যার প্রস্তুত ও রক্ষণাবেক্ষণকারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী এম রাশিদুল হাসান। এশিয়া এবং ওশেনিয়া অঞ্চলের ২৪টি ইকোনোমি দেশ নিয়ে এশিয়ান-ওশেনিয়া কম্পিউটিং ইন্ডাস্ট্রি অর্গানাইজেশন (অ্যাসোসিও) গঠিত। প্রতিবছর ২৪টি দেশ হতে মনোনীত শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান ও প্রজেক্টকে চারটি ক্যাটেগরিতে অ্যাসোসিও এই বিরল সম্মাননা দিয়ে থাকে।

এখানে উল্লেখ্য যে, তৈরি পোশাক শিল্পের উত্তরোত্তর প্রবৃদ্ধি, মালিক ও শ্রমিকদেরকে বিভিন্ন সুবিধা প্রদান নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ২০১৩ সালে বিজিএমইএ-র উদ্যোগে এই 'বায়োমেট্রিক আইডেন্টিটি অ্যান্ড ওয়ার্কার ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (ওয়ার্কার ডেটাবেসে)' সফটওয়্যারটি সারাদেশে বাস্তবায়ন করা হয়।

এটি একটি অনন্য সফটওয়্যার সিস্টেম, যার মাধমে ফ্যাক্টরির সকল শ্রমিকের বায়োমেট্রিক ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ছবি, চাকুরি ও অন্যান্য সকল তথ্য স্থানীয় ও ক্লাউড সার্ভার ডাটাবেস-এ অন্তর্ভুক্ত করা হয়; যা পরবর্তীতে অন্যান্য সকল ফ্যাক্টরির শ্রমিকের সাথে সবধরনের সনাক্ত ও নিশ্চিতকরণ করা যায়। এছাড়াও সার্ভিস বুক, ইন্স্যুরেন্স, ইউডি, ক্যাশ ইনসেনটিভ ও অন্যান্য কাজে জন্য এই তথ্য ভান্ডার তৈরি পোশাক শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে এক-ক্লিকেই সব-ধরণের তথ্য সরবরাহ করে থাকে। বর্তমানে সারাদেশে বিজিএমইএ-র ২৩০০টির অধিক ফ্যাক্টরি ৩৫ লক্ষাধিক শ্রমিকের জন্য এই সফটওয়্যার প্রতিদিন ব্যবহার করে থাকেন। বিশ্বে তথা দক্ষিণ এশিয়ায় অনন্য এই সফটওয়্যার সিস্টেমটির কারিগরী সহায়তা, উন্নয়ন, স্থাপন, প্রশিক্ষণ ও রক্ষনাবেক্ষন করেছে আমাদের দেশীয় প্রতিষ্ঠান টাইগার আইটি বাংলাদেশ ও সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেড।

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ৬০ বার


মুখোমুখি

Card image cap
‘বাংলাদেশকেই হিটাচি পণ্যের বাজার হিসেবে অধিক সম্ভাবনাময় দেশ বলে মনে হয়’ - চেন টেক ব্যঙ্ক

হিটাচি হোম ইলেকট্রনিক্স এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক প্রকৃতঅর্থে একজন বয়োজষ্ঠ্য, কিন্তু তার জ্ঞানের পরিধি এবং অক্লান্ত পরিশ্রম তার বয়সকেও হার মানিয়ে দেয়। আর সে কারণেই তিনি হয়ে ওঠেন এক অদম্য যুবকের সমতুল্য। তার আধুনিক ব্যবসায়িক চিন্তাধারা এশিয় অঞ্চলে হিটাচি পণ্য ও সেবার  বাজারের ব্যাপক প্রসার ঘটাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। বাংলাদেশে হিটাচি কোম্পানির ডিস্ট্রিবিউটর ইউনিক বিজনেস সিস্টেম লিমিটেড কর্তৃক আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে মাসিক টেকওয়ার্ল্ড পত্রিকার প্রতিনিধির জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক এর সাক্ষাৎকার গ্রহণের সুযোগ হয়, যার উল্লেখযোগ্য অংশটুকু এখানে তুলে ধরা হলোঃ

প্রশ্নঃ সাধারণ