ঘরে বসেই কিনুন আল বীজ বপনের যন্ত্র

প্রকাশঃ ০৩:২৬ মিঃ, নভেম্বর ১২, ২০১৮
Card image cap


টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

আলু বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান খাদ্যশস্য। অর্থনীতিতে এর ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে। আলু চাষ লাভজনক হলেও শ্রমিক সংকটের কারণে অনেকেই আলু চাষে আগ্রহী নন। শ্রমিক সংকট নিরসণে আলু চাষীদের জন্য আলু বীজ বপনের যন্ত্র আনলো ডিএমআরই নামের একটি কৃষি পণ্য বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান।

এই যন্ত্র দিয়ে কৃষকরা অনায়াসেই জমিতে আলু বীজ বপন করতে পারবেন। যন্ত্রটি দিয়ে অল্প সময়ে, স্বল্প খরচে আলু বীজ বপন করা যাবে। 

যন্ত্রটিতে পাওয়ার টিলার চালিত। এতে রয়েছে ১২ অশ্বশক্তির ডিজেল ইঞ্জিন। সমন্বিত আলু চাষে যন্ত্রটি বেশ সহায়ক।

এই যন্ত্র দিয়ে বেড পদ্ধতিতে আলু লাগানো, সার প্রয়োগ করার পাশাপাশি বীজ লাগানোর উপযোগ বেডও প্রস্তুত করা যাবে।

প্রচলিত পদ্ধতিতে আলু চাষের উপযোগী জমি তৈরি করতে প্রথমমে জমি চাষ, সার প্রয়োগ, বীজ বপন করে বেড প্রস্তুত করতে হয়। অন্যদিকে যন্ত্র দিয়ে আলু বীজ বপনে এই কাজগুলো একই সঙ্গে সম্পন্ন হয়। ফলে সময়, খরচ দুটোই বাঁচে।

কৃষি যন্ত্র আমদানি এবং বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান ডিএমআরই-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকতা জি এ টুটুল বলেন, ‘গৃহস্থরা দিনদিন কৃষিবিমুখ হয়ে পড়েছেন। এর মূল কারণ কৃষি শ্রমিক সংকট। এখন আলু বীজ বপণের মৌসুম চলছে। এই মৌসুমে কৃষকদের জন্য সাশ্রয়ী দামে একটি যন্ত্র এনেছি। যন্ত্রটি কিনে কৃষকরা সহজেই আলু চাষ করতে পারবেন।’

জি এ টুটুল জানান, ডিএমআরই দেশে কৃষি ও কৃষকদের জন্য কাজ করছে। কৃষির আধুনিকায়নের জন্য প্রয়োজনীয় সকল যন্ত্রপাতি আমদানি করে অনলাইন ও অফলাইনে বিক্রি করছে প্রতিষ্ঠানটি। এসব যন্ত্রের দাম কৃষকদের হাতের নাগালে।

এর আগে প্রতিষ্ঠানটি ধান, ভুট্টা ও গম কাটা ও মাড়াই মেশিন স্বল্পমূল্যে কৃষকদের কাছে পৌঁছে দিয়েছে ডিএমআরই।

প্রান্তিক অঞ্চলের কৃষকরা আলু বীজ বপনের যন্ত্রটি ঘরে বসেই অর্ডার করে পেতে পারেন। এজন্য ভিজিট করতে হবে dmrebd.com এই ঠিকানায়। মোবাইল ফোনে অর্ডার করেও যন্ত্রটি পেতে পারেন। যেসকল কৃষকরা যন্ত্রটি কিনবেন তাদেরকে বিনামূল্যে এটি পরিচালনার কায়দা কানুন শিখিয়ে দেবে ডিএমআরই। 

আলু বীজ বপনের যন্ত্রটির দাম ৪৫ হাজার টাকা।

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ৫১ বার


মুখোমুখি

Card image cap
‘বাংলাদেশকেই হিটাচি পণ্যের বাজার হিসেবে অধিক সম্ভাবনাময় দেশ বলে মনে হয়’ - চেন টেক ব্যঙ্ক

হিটাচি হোম ইলেকট্রনিক্স এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক প্রকৃতঅর্থে একজন বয়োজষ্ঠ্য, কিন্তু তার জ্ঞানের পরিধি এবং অক্লান্ত পরিশ্রম তার বয়সকেও হার মানিয়ে দেয়। আর সে কারণেই তিনি হয়ে ওঠেন এক অদম্য যুবকের সমতুল্য। তার আধুনিক ব্যবসায়িক চিন্তাধারা এশিয় অঞ্চলে হিটাচি পণ্য ও সেবার  বাজারের ব্যাপক প্রসার ঘটাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। বাংলাদেশে হিটাচি কোম্পানির ডিস্ট্রিবিউটর ইউনিক বিজনেস সিস্টেম লিমিটেড কর্তৃক আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে মাসিক টেকওয়ার্ল্ড পত্রিকার প্রতিনিধির জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক এর সাক্ষাৎকার গ্রহণের সুযোগ হয়, যার উল্লেখযোগ্য অংশটুকু এখানে তুলে ধরা হলোঃ

প্রশ্নঃ সাধারণ