কমনওয়েলথ ফিউচার ইয়ুথ সামিটে বাংলাদেশ

প্রকাশঃ ০৪:০৯ মিঃ, অক্টোবর ৩০, ২০১৮
Card image cap


টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

মালয়েশিয়ার সানওয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠেয় ‘ফিউচার ইয়ুথ সামিট-২০১৮’র আয়োজক কমিটিতে স্থান পেয়েছেন বেশ কয়েকজন বাংলাদেশী। পাশাপাশি ডেলিগেট হিসেবে আরও কয়েকজন যোগ দিচ্ছেন।সব মিলিয়ে ইয়ুথ সামিট যেন হয়ে উঠছে দেশী ও প্রবাসী বাংলাদেশীদের মিলনমেলা।

কমনওয়েলথ সেক্রেটারিয়েট, কমনওয়েলথ ইয়ুথ কাউন্সিল ও কমনওয়েলথ ইয়ুথ ইনোভেশন সেন্টারের যৌথ আয়োজনে আগামী ১৬-১৮ নভেম্বর অনেুষ্ঠেয় এ সামিটের তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মালয়েশিয়ায় অধ্যয়নরত বাংলাদেশী শিক্ষার্থী ও তরুণ উদ্যোক্তা পাভেল সারওয়ার। সামিটের বিভিন্ন বিভাগে এক্সিকিউটিভ মেম্বার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বাংলাদেশী তরুণ। তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগে গবেষক ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সরোজ মেহেদী, স্পিকার ম্যানেজমেন্ট বিভাগে প্রকৃতি ওয়াজেদ শিকদার ও তাহিয়া ইসলাম, হিউমান রিসোর্স বিভাগ রিফাত রিয়াজ বিকু, স্পন্সর ও পার্টনারশিপ বিভাগে সবুজ সরদার সামিটের এক্সিকিউটিভ মেম্বার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

এবারের ইয়ুথ সামিটের লক্ষ্য হচ্ছে, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের তরুণদের মধ্যে একটি প্লাটফর্ম তৈরি করে দেওয়া। যাতে তারা পরস্পরের সাথে নিজেদের অভিজ্ঞতা, জ্ঞান ও দক্ষতা শেয়ার করতে পারে। চারটি থিমাটিক পিলারের ওপর এ সামিট হচ্ছে।এগুলো হলো, ডিজিটালাইজেশন, ইনক্লুসিভিটি, ক্রিয়েটিভিটি ও সাসটেইনেবিলিটি।চারটি থিমের ওপর আলাদা আলাদা ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত হবে।

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ডেলিগেটদের পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকে তরুণ চলচিত্র নির্মাতা জাফর ফিরোজ, নারী উদ্যোক্তা সুমাইয়া জাফরিন চৌধুরী, সাখাওয়াত হোসেন, বেলাল আহমেদ, মোঃ জার্জিস ইসলাম প্রমুখ সামিটে যোগ দিচ্ছেন।সামিটের স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার হিসেবে রয়েছে ইয়ুথ অপরচুনিটিস ও ল্যাব পার্টনার হিসেবে আছে ইনেভেশন হাব বাংলাদেশ।

জানতে চাইলে, সামিটের তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের প্রধান পাভেল সারওয়ার বলেন, সামিটে সব দেশের অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সেরা হওয়াটাই আমাদের লক্ষ্য। এ লক্ষ্যে আমরা যারা বাংলাদেশী অংশগ্রহণকারী আছি তারা কাজও করছি। তিনি বলেন, বাংলাদেশ নিয়ে মধ্যপ্রাচ্য ও মালয়েশিয়ার মতো দেশগুলোতে যে নেগেটিভ ধারণা রয়েছে আমরা আশা করি সামিটের পর তা কিছুটা হলেও কমে আসবে।দেশের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে কাজ করলে লক্ষ্য অর্জন সম্ভব বলেও মত দেন তিনি।

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের পাঁচ শতাধিক তরুণ নেতা, উদ্যোক্তা, সমাজকর্মী, শিল্প বিশেষজ্ঞ, সরকারি কর্মকর্তা, সমাজকর্মী এ সামিটে যোগ দেবেন। সামিটে কমনওয়েলথের সেক্রেটারি জেনারেল প্যাটরিসিয়া স্কটল্যান্ড, ভারতের প্রখ্যাত লেখক ও সমাজকর্মী বন্দনা শিভা ছাড়াও রাশিয়া, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান, ইথিউপিয়াসহ বেশ কয়েকটি দেশের মন্ত্রীদের যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে।

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ৩০ বার


মুখোমুখি

Card image cap
‘বাংলাদেশকেই হিটাচি পণ্যের বাজার হিসেবে অধিক সম্ভাবনাময় দেশ বলে মনে হয়’ - চেন টেক ব্যঙ্ক

হিটাচি হোম ইলেকট্রনিক্স এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক প্রকৃতঅর্থে একজন বয়োজষ্ঠ্য, কিন্তু তার জ্ঞানের পরিধি এবং অক্লান্ত পরিশ্রম তার বয়সকেও হার মানিয়ে দেয়। আর সে কারণেই তিনি হয়ে ওঠেন এক অদম্য যুবকের সমতুল্য। তার আধুনিক ব্যবসায়িক চিন্তাধারা এশিয় অঞ্চলে হিটাচি পণ্য ও সেবার  বাজারের ব্যাপক প্রসার ঘটাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। বাংলাদেশে হিটাচি কোম্পানির ডিস্ট্রিবিউটর ইউনিক বিজনেস সিস্টেম লিমিটেড কর্তৃক আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে মাসিক টেকওয়ার্ল্ড পত্রিকার প্রতিনিধির জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক এর সাক্ষাৎকার গ্রহণের সুযোগ হয়, যার উল্লেখযোগ্য অংশটুকু এখানে তুলে ধরা হলোঃ

প্রশ্নঃ সাধারণ